ব্যবসা শুরু করার আগে যে বিষয়গুলি অবশ্যই মাথায় রাখা উচিত

ব্যবসা শুরু করার আগে যে বিষয়গুলি অবশ্যই মাথায় রাখা উচিত
Website Development Services Kolkata

বানিজ্যে বসতি লক্ষ্মী। ব্যবসাই একমাত্র পন্থা যেখানে বাস্তবিকই আপনি ‘যত খুশি’ উপার্জন করতে পারেন। শুধু চাই সঠিক পরিকল্পনা, কিছু ব্যবসায়িক জ্ঞান, এবং সেগুলোকে ঠিকঠাক কাজে লাগানো।

তাই যদি আপনি ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবছেন, বা ইতিমধ্যে পরিকল্পনা মাফিক প্রস্তুতি শুরু করে দিয়েছেন, তো কাজের খবর-এর এই প্রতিবেদন আপনার অবশ্যই পড়া উচিত।

কিভাবে আপনার ব্যবসার পরিকল্পনা করবেন?

পরিকল্পনা করে যে কাজ করা হয়, সেই কাজে অসফল হওয়ার সম্ভাবনা অনেকটাই কমে যায়। ব্যবসা শুরু করার আগে ভাবতে হবে-আপনি কি ব্যবসা করবেন, বাজারে চাহিদা কিরকম, ভালো কাঁচামাল সস্তায় কোথায় পাবেন, কর্মচারী কিরকম হওয়া উচিত, সেই ব্যবসা কতটা লাভজনক, কত পুঁজি বিনিয়োগ করতে হবে, কারা আপনার প্রধান প্রতিযোগী ইত্যাদি। এগুলোর জন্যে আপনাকে ইন্টারনেট, বিভিন্ন বড়ো মার্কেট, এসব বিশদে খবর জোগাড় করতে হবে। এর পর এইসব তথ্য দিয়ে কাগজে-কলমে পুরো প্ল্যান তৈরী করুন যে কত টাকার কাঁচামাল লাগবে, কত টাকা খরচ হবে অফিস বানাতে, মার্কেটিং এ কত টাকা বরাদ্দ করবেন ইত্যাদি।

ব্যবসার জন্যে কতটা মানসিকভাবে প্রস্তুত আপনি?

পরিবারে যখন কেউ প্রথম ব্যবসা শুরু করার কথা ভাবে, তখন নানান লোকে নানান কথা বলে। কিছু যেখানে উৎসাহিত করার মতো, বাকিরা মানসিক জোর ভেঙ্গে দেয়। তাই মানসিক ভাবে নিজেকে প্রস্তুত করাটা খুব জরুরি। মনে রাখতে হবে, যেকোনো ব্যবসারই লাভজনক অবস্থায় আসতে কিছু সময় লাগে। সেই সময়টা আপনাকে মনের জোর ধরে রেখে, ব্যবসার কোথায় কি খামতি আছে সেগুলো খুঁজে সেগুলোর সমাধান করতে হবে।

ব্যবসার খুঁটিনাটি সব জেনে নিয়েছেন তো?

আপাতদৃষ্টিতে লাভজনক মনে হলেও একেক ধরণের ব্যবসায় একেক রকমের প্রতিকূলতা থাকে। এইসব প্রতিকূলতা কাটিয়ে ওঠার সব থেকে সহজ ও কার্যকর উপায় হলো ব্যবসার খুঁটিনাটির ব্যাপারে নিজের জ্ঞান বাড়ানো। কাঁচামাল এর গুণমান যাচাই করা হোক, কর্মচারী নিয়োগ, হিসাব-পত্র বা আইনি কাগজপত্র, সব দিকেই আপনাকে নজর রাখতে হবে। আর এই ম্যানেজমেন্ট আপনি যত ভালো করতে পারবেন, ততই ঝামেলা-ঝক্কি বিহীন ও লাভজনক হবে আপনার ব্যবসা।

প্রয়োজনে কোথাও এর প্রাথমিক প্রশিক্ষণ নেওয়া যেতে পারে । কেন্দ্র সরকারের এম.এস.এম.ই. (অতিক্ষুদ্র, ক্ষুদ্র, ও মাঝারি শিল্প) বিভাগ বিভিন্ন ব্যবসার জন্যে প্রয়োজনীয় প্রশিক্ষণ, কারিগরি সাহায্য, পুঁজির সাহায্য, ইত্যাদি দিয়ে থাকে। আপনার জেলার সংশ্লিষ্ট আধিকারিকের দফতরে বা রাজ্যের মূল দফতরে গিয়ে এই সংক্রান্ত তথ্য জেনে নিতে পারেন। এই প্রতিবেদনের শেষে সংশ্লিষ্ট দফতরের যোগাযোগের বিবরণ দেওয়া হলো।

ব্যবসার পুঁজি কোথায় পাবেন?

যেকোনো ব্যবসা শুরু করতে কিছু মূলধন লাগে। অনেক সময় আমরা কিছু জিনিস ‘পরে করবো’ ভেবে প্রাথমিক খরচে কাটছাঁট করি। কিন্তু দেখা গেছে, এতে আখেরে ব্যবসা মার খায় এবং মানুষের মনে এই ধরণের ব্যবসার ব্যাপারে বিরূপ মনোভাব তৈরী হয়। তাই, বাড়াবাড়ি না করলেও, প্রয়োজনীয় খরচের জিনিসে কোনো রকম আপস করবেন না। প্রয়োজনে ব্যাংক থেকে লোন নিন। এখন বিভিন্ন ব্যাংক সরকারি সহায়তায় বিভিন্ন ধরণের ব্যবসা শুরু করার জন্যে কম সুদে লোন দিচ্ছে। আপনার নিকটস্থ ব্যাংকে যোগাযোগ করে এই ব্যাপারে খবর নিন।

ব্যবসার লাইসেন্স ও অন্যান্য কাগজপত্র করেছেন?

বৈধ ভাবে ব্যবসা করার জন্য কিছু ববসায়িক কাগজপত্রাদি প্রয়োজন হয়। যেমন – ট্রেড লাইসেন্স, জিএসটি, ফুড লাইসেন্স, কেমিক্যাল লাইসেন্স ইত্যাদি। অবশ্যই সবার এসব লাগে না। আপনার ব্যবসার ধরণ, কাঁচামালের ধরণ, ইত্যাদি বিভিন্ন বিষয়ের ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন এলাকায় বিভিন্ন রকমের লাইসেন্স লাগতে পারে। তাই আপনার গ্রাম পঞ্চায়েত বা মিউনিসিপালিটি অফিস এ গিয়ে যোগাযোগ করুন।

মনে রাখবেন, যে কোনো ধরণের ব্যবসা শুরু করতে গেলে অবশ্যই ট্রেড লাইসেন্স করিয়ে নেওয়া উচিত যাতে ভবিষ্যতে কোনো আইনি জটিলতায় পড়তে না হয়। আর আপনার যদি ব্যবসার বাৎসরিক আয় ২০লাখ এর বেশি হয়, বা আপনি অনলাইন কেনা-বেচার ব্যবসা করতে চান, বা আপনি অন্য রাজ্যে আপনার দ্রব্য বেচতে চান, সেক্ষেত্রে অবশ্যই আপনাকে জিএসটি রেজিস্ট্রেশন করে নিতে হবে।

ব্যবসায় মার্কেটিং এর প্ল্যান বানিয়েছেন তো?

বিশেষজ্ঞরা বলেন, যেকোনো ব্যবসায় সঠিক মার্কেটিং প্ল্যান বানানো এবং তাকে কাজে লাগানোটা সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ কাজ। কারণ মার্কেটিং ছাড়া আপনার ব্যবসার প্রচার, প্রসার হবে না এবং ধীরে ধীরে আপনার বিক্রি ও লাভ কমে আসবে। আখেরে আপনার ব্যবসা মুখ থুবড়ে পড়বে। জেনে রাখুন, লোক-মুখে প্রচার হয়ে যে খরিদ্দার আপনি পান, সেটা আসলে আপনার ‘উপরি ইনকাম’ । যতক্ষণ না আপনি মার্কেটিং করছেন, আপনি একটা নিশ্চিত পরিমান লাভ বা তার বেশি আশা করতে পারেন না। মার্কেটিং এর ব্যাপারে পরামর্শের জন্যে যোগাযোগের নম্বর নিচে দেওয়া থাকলো। সম্পূর্ণ বিনামূল্যে আপনার ব্যবসা রেজিস্টার করার জন্যে, ও বিনামূল্যে বিজ্ঞাপন দেওয়ার জন্যে এখানে ক্লিক করুন

এছাড়াও আপনাকে ব্যাবসার ক্ষেত্রে পরিশ্রমী ,সততা ও বুদ্ধিমত্তার পরিচয় দিতে হবে। পরিশ্রম এবং বুদ্ধি যেমন আপনার ব্যবসাকে উন্নতির দিকে নিয়ে যাবে, সেরকমই আপনার সততা কাস্টমারের সাথে আপনার বিশ্বাসের সম্পর্ক গড়ে তুলবে। এতে আপনার ব্যবসার সফলতা নিশ্চিত হবে।

এর পরেও কোনো বিষয়ে কোনোরকম প্রশ্ন বা সংশয় থাকলে কমেন্ট করে জানাতে পারেন। পরবর্তী প্রতিবেদন খুব শীঘ্রই আসবে , অপেক্ষায় থাকুন আর অনুসরণ করতে থাকুন ‘কাজের খবর’।

এম.এস.এম.ই কলকাতা: 4, অবনীন্দ্রনাথ টেগোর সরণি, 8 তলা, ক্যামাক স্ট্রিট, কলকাতা 700016
মার্কেটিং এর পরামর্শ এর জন্যে ফোন করুন: 7688067773

Post Free Classified Ad | Kajer Khobor

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *